বিমান দুর্ঘটনায় বেঁচে নেই কোনো ক্রু

নেপালের কাঠমান্ডুতে বিধ্বস্ত ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের পাইলট আবিদ সুলতানসহ বিমানটিতে থাকা অন্য তিন ক্রুর কেউই বেঁচে নেই। কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের জেনারেল ম্যানেজার রাজকুমার ছেত্রী মঙ্গলবার সকালে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রাজকুমার ছেত্রী জানান, গতকাল সোমবার বিমানের সব ক্রু মারা যান।

নিহত অপর তিন ক্রু হলেন-প্রিথুলা রশিদ, খাজা হোসেন মোহাম্মদ শাফি ও শারমিন আক্তার। এদের মধ্যে প্রিথুলা বিমানটির কো-পাইলট ছিলেন।

তবে ঘটনাস্থলেই নাকি হাসপাতালে নেয়ার পর তাদের মৃত্যু হয়েছে সে ব্যাপারে তিনি নিশ্চিত করে বলতে পারেননি।
তিনি আরও জানান, ১১ জন বাংলাদেশিকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে তিন থেকে চার জনের অবস্থা সংকটজনক।

উল্লেখ্য, সোমবার বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে দেয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ইউএস বাংলা এয়ারলাইনসের ওই উড়োজাহাজটিতে মোট ৭১ জন আরোহী ছিলেন। এর মধ্যে ৬৭ জন যাত্রী ও চারজন ক্রু।

যাত্রীদের মধ্যে ৩২ জন বাংলাদেশি, ৩৩ জন নেপালি এবং একজন চীন ও একজন মালদ্বীপের নাগরিক।