ভ্রাম্যমাণ তথ্য ও পরামর্শ সেবা কার্যক্রম

14

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জনসচেতনতায় সেবাগ্রহীতাদের ভ্রাম্যমান তথ্য ও পরামর্শ সেবা প্রদান করা হয়েছে। সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) চকরিয়ার সহযোগী সংগঠন ইয়ুথ এনগেজমেন্ট অ্যান্ড সাপোর্ট (ইয়েস) সেবাগ্রহীতাদের ভ্রাম্যমাণ তথ্য ও পরামর্শ সেবা প্রদান করেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত চলে সেবা কার্যক্রম।
টিআইবির সহকারী ম্যানেজার মিটন বনিক বাবু বলেন, চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবাগ্রহীতাদের হাসপাতালের বিদ্যমান সকল সেবা, সেবার মূল্য ও সেবা গ্রহণের প্রক্রিয়া সম্পর্কে অবহিত করেন ইয়েস সদস্যরা । বিশেষ করে সরকারি হাসাপতালে নির্ধারিত ফি দিয়ে সেবা গ্রহণ, হাসপাতালের পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা, যে কোন শারীরিক অসুস্থতায় সরকারি হাসপাতালে স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণ, গর্ববতী নারীদের হাসপাতালে নিয়মিত চেকআপ ও ডেলিভারি সেবা গ্রহণ, কাঙ্খিত সেবা না পেলে ও অনিয়ম দুর্নীতি পরিলক্ষিত হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে অবহিতকরণ বিষয়ে নাগরিক সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য এ কর্মসূচি আয়োজন করা হয়। এ সময় হাসপাতালের রোগীরা তাদের বিভিন্ন সুবিধা-অসুবিধার বিষয়ে ইয়েস সদস্যদের অবহিত করেন। পরবর্তীতে হাসপাতাল কর্র্তৃপক্ষের সাথে মতবিনিময়কালে বিষয়টি তাদেরকে অবহিত করা হবে বলেও জানান তিনি।
সনাক সদস্য জিয়া উদ্দিনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠিত ভ্রাম্যমাণ তথ্য ও পরামর্শ সেবা কর্মসূচিতে ইয়েস সদস্য সুমাইয়া আমিরুন্নেছা, মো. আবু সৌরভ, মোহাম্মদ সবুজ, মো. বোরহান উদ্দিন, ইয়াসমিন আক্তার রেশমী, রুবি আক্তার, রায়হানুল ইসলাম, আব্দুল করিম, নুরুল কবির মিলন, রবিউল হাসান, মো. ইউনুছ উদ্দিন ও সাইফুল ইসলাম।