কিরাত সম্মেলনস্থল পরিদর্শনে বিভাগীয় কমিশনার

6

নগরের জমিয়তুল ফালাহ মসজিদে প্রাঙ্গণে আয়োজিত আন্তর্জাতিক কিরাত সম্মেলনস্থল পরিদর্শন করেছেন বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান, পিএইচপি ফ্যামিলির পরিচালক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম রিংকু সহ সংশ্লিষ্টরা।

শুক্রবার (৮ ফেব্রুয়ারি) জুমার পূর্বে তারা পরিদর্শনে গিয়ে সার্বিক প্রস্তুতি তদারকি করেন এবং সম্মেলন সহযোগি আনজুমান-এ-রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট ও গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ এর কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেন।

শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) ১৯তম আন্তর্জাতিক কিরাত সম্মেলনে ৫০ হাজার নারী-পুরুষের সমাগম হবে বলে আশা করছেন সম্মেলনের আয়োজক আন্তর্জাতিক কুরআন তিলাওয়াত সংস্থা (ইকরা)।

এতে যোগ দিচ্ছেন মিশরের শাইখ ইয়াসির শারকাউদ, দক্ষিণ আফ্রিকার আব্দুর রহমান সাদিয়ান, তুরস্কের ইয়াশার চৌহাদার, ইরানের হামিদ শাকের নেজাদ, ফিলিপাইনের নো’মান পিমবায়াবায়া ও বাংলাদেশের শাইখ আহমদ বিন ইউসুফ আল-আজহারী সহ বিশ্বের সেরা কারিরা।

পিএইচপি ফ্যামিলির পৃষ্ঠপোষকতায় ও শাহাদাতে কারবালা মাহফিল পরিচালনা পর্ষদের ব্যবস্থাপনায় এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

কিরাত সম্মেলনস্থল পরিদর্শনে বিভাগীয় কমিশনারপিএইচপি ফ্যামিলির পরিচালক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম রিংকু জানান, মসজিদ প্লাজা, মাঠ ও আশপাশে মুসল্লিদের জন্য এবং মসজিদের নিচতলায় নারীদের জন্য প্রজেক্টরের মাধ্যমে তেলাওয়াত শোনার ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। এলইডি টিভি থাকবে। সাউন্ড সিস্টেম থাকবে। আমন্ত্রিত কারিরা প্রত্যেকে ৩০-৪০ মিনিট কোরআন তেলাওয়াত করে শোনাবেন। শিশু-কিশোর যারা আরবি শিখছে তারাও এ সুযোগটা নিতে পারবে। সেরা কারিদের কণ্ঠে কোরআন শুনে উদ্বুদ্ধ হয়ে সুন্দরভাবে কোরআন পড়ার ইচ্ছেটা সবার মধ্যে জাগ্রত করতে এ আয়োজন।